1. mahadihasaninc@gmail.com : admin :
  2. hossenmuktar26@gmail.com : Muktar hammed : Muktar hammed
১ দফা দাবি ও ২ দফা আন্দোলনের সমর্থনে এবি পার্টির বিক্ষোভ - dailybanglakhabor24.com
  • May 7, 2024, 5:32 am

১ দফা দাবি ও ২ দফা আন্দোলনের সমর্থনে এবি পার্টির বিক্ষোভ

  • Update Time : শুক্রবার, আগস্ট ১১, ২০২৩ | সকাল ১১:৩২
  • 41 Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক
এবি পার্টির সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মন্জু বলেছেন; রুচির ভয়াবহ অবক্ষয়ে পড়েছে আওয়ামীলীগ সরকার। বিরোধীদলীয় নেতা হিসাবে রওশন এরশাদের বদলে বিদিশা কিম্বা হিরো আলম’ই এখন তাদের ভরসা। দিন যত যাচ্ছে ফ্যাসিবাদী সরকারের ভুলের পরিমাণ দ্বিগুন হচ্ছ ; তাদের বন্ধু কমছে, শত্রু বাড়ছে। জনগণের দাবি মেনে সরকার যদি অবিলম্বে পদত্যাগ না করে তাহলে গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে এই সরকারের পতন হবে।
আজ শুক্রবার সকাল ১১টায় আমার বাংলাদেশ পার্টি (এবি পার্টি) আয়োজিত এক দফা দাবি ও দুই দফা আন্দোলনের সমর্থনে রাজধানীর বিজয়নগরস্থ বিজয় একাত্তর চত্বরে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি একথা বলেন। এবি পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহবায়ক বিএম নাজমুল হকের সভাপতিত্বে ও সিনিয়র সহকারী সদস্য সচিব আনোয়ার সাদাত টুটুলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবি পার্টির সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মন্জু। সমাবেশে বক্তব্য আরও রাখেন পার্টির যুগ্ম সদস্য সচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ, দফতর সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন রানা, যুবপার্টির আহবায়ক এবিএম খালিদ হাসান, মহানগর উত্তরের আহবায়ক আলতাফ হোসাইন প্রমূখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মজিবুর রহমান আরও মঞ্জু বলেন- দূর্নীতি, দূঃশাসন ও নজীরবিহীন লুটপাট করে আওয়ামীলীগ সরকার দেশকে গভীর সংকটে ফেলেছে, এখন তারা দেশকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করতে চায়। দিন যত যাচ্ছে তাদের ভুলের পরিমাণ দ্বিগুন হচ্ছে।; ফ্যাসিবাদী সরকারের বন্ধু কমছে, শত্রু বাড়ছে। অতীতে যারা গণতন্ত্রকে হ্ত্যা করতে উদ্যত হয়েছিল তাদের করুণ পরিণতি হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনগণের দাবি মেনে যদি পদত্যাগ না করে তাহলে গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে এই সরকারের পতন হবে। তিনি সরকারকে সতর্ক করে বলেন, রাজপথের গণতান্ত্রিক আন্দেলনকে দমন করে আবার জাসদের মত হটকারী রাজনীতি চালুর উস্কানি দেবেননা। মনে রাখবেন আপনাদের জিঘাংসার রাজনীতির কারণেই এদেশে সর্বহারাদের হটকারী গলাকাটা রাজনীতি চালু হয়েছিল। আপনারা এখন আবার সেটা আমদানী করতে চাচ্ছেন। নির্বাচন কমিশনের প্রহসনমূলক নিবন্ধন প্রক্রিয়ার সমলোচনা করে তিনি আরও বলেন, আওয়ামীলীগের রুচি ক্রমশঃ বরবাদ হতে চলেছে। গত দুইবার তারা বিএনপি’র বদলে জাতীয় পার্টিকে বিরোধীদল হিসেবে বেছে নিয়েছিল। জাতীয় পার্টিতেও এখন তাদের ভরসা নেই বলে মনহচ্ছে। এবার তারা সুপ্রিম পার্টি, বিএনএম, ইনসানিয়াত বিপ্লব পার্টির মত দলগুলোকে বিরোধীদল বানাতে চায়। রুচির ভয়াবহ অবক্ষয়ে পড়েছে সরকার, তাই বিরোধীদলীয় নেতা হিসাবে রওশন এরশাদের বদলে বিদিশা কিম্বা হিরো আলম’ই এখন তাদের ভরসা।
ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ বলেন, রকীব উদ্দীন আর নুরুল হুদা কমিশনের মত আউয়্যাল কমিশনও দ্বিতীয় বাকশালের আজ্ঞাবহ কমিশনে পরিনত হয়েছে। মুদির দোকানদার, &৳চা-পানের দোকানদার থেকে শুরু করে যাকে তাকে দলীয় নিবন্ধন দিচ্ছে নির্লজ্জভাবে, শুধু রাজনৈতিক দল ছাড়া। ১/১১’র আমলেও আমরা রাজার বানানো দল দেখেছি, কিন্তু সেই পিডিপি’র আর কোন খবর নেই আজকে। যুগে যুগে ফ্যাসিবাদীরা যেমন করে ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে হারিয়ে গেছে, তেমনি বর্তমান বাকশাল ও তার দোসররাও হারিয়ে যাবে, শুধু রয়ে যাবে তাদের প্রতি জনমানুষের ক্ষোভ এবং ঘৃনা।
সভাপতির বক্তব্যে বিএম নাজমুল হক বলেন, এই অবৈধ জালিম সরকারের পদত্যাগ ব্যাতীত দেশের গণতন্ত্র ও মানুষের মুক্তি নাই। নির্যাতন করে, মামলা হামলা করে সরকার মুক্তিকামী জনতাকে দমিয়ে রাখতে পারবেনা।
সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন পার্টির সহকারী সদস্য সচিব এম আমজাদ খান, শাহ আব্দুর রহমান, যুবপার্টির সদস্য সচিব শাহাদাতুল্লাহ টুটুল, ছাত্রপক্ষের আহবায়ক মোহাম্মদ প্রিন্স, মহানগর উত্তরের সদস্য সচিব ফিরোজ কবির, ছাত্রপক্ষের সদস্য সচিব আশরাফুল ইসলাম নির্ঝর, মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক গাজী নাসির, আব্দুল হালিম খোকন, শাহিনুর আক্তার শীলা, সাইফুল ইসলাম।
সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বিজয় একাত্তর চত্বর থেকে শুরু হয়ে কাকরাইল, বিজয়নগর, পল্টন সহ রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category