1. mahadihasaninc@gmail.com : admin :
  2. hossenmuktar26@gmail.com : Muktar hammed : Muktar hammed
মুগ্ধতা ছড়ালেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধিরা - dailybanglakhabor24.com
  • June 7, 2024, 7:14 am

মুগ্ধতা ছড়ালেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধিরা

  • Update Time : বুধবার, সেপ্টেম্বর ৬, ২০২৩ | দুপুর ১:১৪
  • 166 Time View


সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক
চোখের দৃষ্টি না থাকলে কি হবে সুরের বৃষ্টিতে দর্শক শ্রোতাদের ভেজালেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধিরা। দুনিয়ার আলো না দেখা অন্ধকারে নিমজ্জিত থাকা এই মানুষগুলো শরতের বিকালে শিল্পের নান্দনিকতায় আলোর দ্যুতি ছড়ালেন চোখভর্তি আলোয় ভরা মানুষের সামনে। সুরে সুরে মুগ্ধতার রেশ ছড়িয়ে নিজেদের ঝলমলে প্রতিভার ছাপ রাখলেন সমাজের অবহেলিত দৃষ্টি প্রতিবন্ধিরা। কণ্ঠ থেকে সুরের বৃষ্টি ঝরিয়েই ক্ষান্ত হন নি দৃষ্টি প্রতিবন্ধিরা। আবহমান বাংলার শেকড়ের সংস্কৃতি পল্লীগীতি, লালন, হাছন রাজার গানগুলো নিজেদের কন্ঠে তুলে ধরে শেকড়ের সংস্কৃতিকেই তুলে ধরলেন সমাজের অবহেলিত এই গোষ্ঠী। সুরের ঢেউ তোলার পাশাপাশি শাস্ত্রীয় নাচের মায়াজাল ছড়িয়ে মোহনীয়তার তরঙ্গে হারিয়ে গেলেন দর্শক শ্রোতারা। এমন চিত্রই ছিলো জাতীয় দৃষ্টি প্রতিবন্ধি সংস্থার ষাটতম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে।
আলোচনা, কেক কাটা, আর্থিক অনুদান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে জমকালো আয়োজনে উদযাপিত হলো জাতীয় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সংস্থার ৬০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।
বুধবার রাজধানীর বকশীবাজারের নিজস্ব কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনব্যাপি এই আয়োজন।
কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সকাল ১১টায় আয়োজনের উদ্বোধন ঘটে। এরপর জাতীয়সংগীত পরিবেশন করেন সংস্থার সদস্যরা। এরপর কেক কাটার মধ্য দিয়ে শুরু হয় আয়োজনের মূল আনুষ্ঠানিকতা।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল।
সংস্থার চেয়ারম্যান নুরুল আলম সিদ্দিকের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব আইয়ুব আলী হাওলাদারের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালক মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম চৌধুরী, জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদের উপ-পরিচালক ভবেন্দ্র নাথ বাড়ৈ, লালবাগ জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ জাফর, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ২৭ নাম্বার ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ওমর বিন আবদাল আজিজ (তামিম) প্রমুখ।
মাইনুল হাসান নিখিল বলেন, দৃষ্টি প্রতিবন্ধিরা প্রমাণ করে দিয়েছে তারা সমাজ ও রাষ্ট্রের বোঝা নয়। তারা নিজ নিজ প্রতিভার ঝলকানিতে আলোকিত। সমাজের অন্য দশজন মানুষের চেয়ে তারা অনেক এগিয়ে রয়েছে বলেই আমি মনে করি। দৃষ্টিশক্তি সম্পন্ন মানুষ যখন তার প্রতিভার বহি:প্রকাশ ঘটায় সেটা স্বাভাবিক। কিন্তু দৃষ্টি প্রতিবন্ধি একজন মানুষ যখন তার প্রতিভার দ্যুতি ছড়ায় তা নিঃ সন্দেহে স্পেশাল। আর স্পেশাল এই মানুষগুলোর অনুষ্ঠানে এসে তাদের সান্নিধ্যে এসে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি।
লালবাগ জোনের উপ -পুলিশ কমিশনার মোঃ জাফর বলেন, আজকের এই আয়োজনে না এলে আমার অনেক কিছুই অজানা থেকে যেতো। দৃষ্টি প্রতিবন্ধিরা বুঝিয়ে দিলো সমাজের স্বাভাবিক মানুষদের চেয়ে তারা কোন অংশে কম নয়। সমাজের এই অবহেলিত অংশের স্বার্থে যেকোন সময় আমি নিবেদিত থাকবো বলে আশ্বাস প্রদান করছি।
জমকালো এই আয়োজনে সারাদেশের ১০০ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধি শিক্ষার্থীর প্রত্যেককে ৩ হাজার করে মোট ৩ লক্ষ টাকা অনুদান প্রদান করা হয়। এছাড়া ২০ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধিকে মাসিক ১ হাজার টাকা করে দুই মাসের জন্য ৪০ হাজার টাকা বয়স্ক ভাতা প্রদান করা হয়। অন্যদিকে, ৫০ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে ৩ হাজার টাকা করে মোট ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা নগদ অর্থ প্রদানের পাশাপাশি ৮ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীকে পূর্ণবাসনের জন্য আটটি সেলাই মেশিন, ১২ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীকে গৃহ নির্মাণের জন্য ১৫ হাজার টাকা করে মোট ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা নগদ অর্থ, ২৪ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীকে ৩ হাজার টাকা করে ৭২ হাজার টাকা চিকিৎসা সহায়তা, ১৪ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীকে ক্ষুদ্র ব্যবসার জন্য ৫ হাজার টাকা করে ৭০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। আর ৪জন মৃতব্যক্তির দাফন বাবদ ৩ হাজার টাকা করে ১২ হাজার টাকা দেওয়া হয় এবং বিভিন্ন জেলা থেকে আগত ১৮০ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সদস্যকে নগদ ৫ হাজার টাকা করে ৯ লক্ষ টাকা নগদ অর্থ প্রদান করা হয়।
দিনব্যাপি বর্ণাঢ্য এই আয়োজনে সারাদেশের ৬ শতাধিক দৃষ্টি প্রতিবন্ধি অংশ নেন।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category