1. mahadihasaninc@gmail.com : admin :
  2. hossenmuktar26@gmail.com : Muktar hammed : Muktar hammed
নাদিম হত্যা : প্রধান আসামি চেয়ারম্যান বাবুর স্বীকারোক্তি - dailybanglakhabor24.com
  • May 6, 2024, 9:54 am

শিরোনামঃ
‘আমলার সন্তানদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কনসেপ্টটা নিতে পারছি না’ বজ্রপাতে মা-ছেলেসহ ৯ জনের মৃত্যু হামাসের ব্যাপক রকেট হামলায় ৩ ইসরায়েলি সৈন্য নিহত দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতেও সহজ জয় টাইগারদের আরও ৮৮ মিয়ানমার সীমান্তরক্ষীর বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ মানুষের হাত-পা কেটে নিজেই ‘অস্ত্রোপচার’ করতেন মিল্টন সমাদ্দার: ডিবি সশস্ত্র বাহিনী সংকটে জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের আস্থা অর্জন করেছে : প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় গণমাধ্যমের স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠা করতে হবে: মঈন খান ঋণ পরিশোধ সরকারের ক্ষমতার বাইরে চলে যাচ্ছে: সিপিডি মন্ত্রী-এমপির স্বজনদের বিরত রাখা দলের নীতিগত সিদ্ধান্ত : কাদের

নাদিম হত্যা : প্রধান আসামি চেয়ারম্যান বাবুর স্বীকারোক্তি

  • Update Time : শুক্রবার, জুন ২৩, ২০২৩ | বিকাল ৩:৫৪
  • 53 Time View

জামালপুর প্রতিনিধি

জামালপুরে সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিম হত্যা মামলার প্রধান আসামি বহিষ্কৃত সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদুল আলম বাবু আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।
শুক্রবার বিকেলে পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে মাহমুদুল আলম বাবুকে জামালপুর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. হাসিব উল্লাহ পিয়াসের আদালতে তোলা হলে ১৬৪ ধারায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউসুফ আলী জানান, মাহমুদুল আলম বাবুকে ৫ দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে এনে সাংবাদিক নাদিম হত্যাকাণ্ডের সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে মামলার প্রধান আসামি বাবুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ডের আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

পরে আদালত ১৬৪ ধারায় মাহমুদুল আলম বাবুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এ মামলায় গ্রেফতার অপর ১২ আসামিকে এর আগে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়। তাদের মধ্যে রেজাউল করিম ও মো. মনিরুজ্জামান মনির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছিল।

উল্লেখ্য, গত ১৪ জুন রাতে বাড়ি ফেরার পথে সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু ও তার সহযোগীরা নাদিমের উপর হামলা করে তাকে গুরুতর আহত করে।

পরদিন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। এ মামলার দ্বিতীয় আসামি বাবু চেয়ারম্যানের ছেলে ফাহিম ফয়সাল রিফাতসহ বেশ কয়েকজন এখনও পলাতক রয়েছে।

 

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category