1. mahadihasaninc@gmail.com : admin :
  2. hossenmuktar26@gmail.com : Muktar hammed : Muktar hammed
জাবিতে তরুণীর ছবিসহ ব্যানার ঝুলিয়ে ক্ষমা প্রার্থনা, অতঃপর… - dailybanglakhabor24.com
  • May 7, 2024, 5:56 pm

জাবিতে তরুণীর ছবিসহ ব্যানার ঝুলিয়ে ক্ষমা প্রার্থনা, অতঃপর…

  • Update Time : সোমবার, জুন ১২, ২০২৩ | রাত ১১:৫৬
  • 46 Time View

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) সমাজবিজ্ঞান অনুষদের পাশে এক তরুণীর ছবিসহ ঝোলানো একটি ব্যানার নিয়ে বেশ সমালোচনা তৈরি হয়েছে। কে বা কারা এমন কাজ করেছে, তাদের নাম-পরিচয় এখনো জানা যায়নি। তবে অনেকেই ধারণা করছেন, ওই তরুণীর প্রেমিক এমন কাজ করে থাকতে পারেন।
এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার ভেতরে তরুণীর ছবিসহ ব্যানার ঝুলিয়ে এ ধরনের প্রচারণার সাথে জড়িত ব্যক্তিকে খুঁজছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।
রবিবার বিকেলে সরেজমিনে দেখা যায়, সমাজবিজ্ঞান অনুষদ ভবনের সামনে সড়কে দুই গাছের মাঝে তরুণীর ছবি সংবলিত ব্যানারটি ঝুলছে। পথচারীদের অনেকেই সেটির ছবি তুলছিলেন। ব্যানারটিতে লেখা ‘সরি নিঝুম’। এর পাশে একটি লাভ ইমোজি।
তবে ব্যানারের ছবিটি ঠিক কার, সেটি এখনো জানা যায়নি। তবে একাধিক শিক্ষার্থী সূত্রে জানা গেছে, ছবিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত এক ছাত্রীর।
বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আজহারুল ইসলাম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, শিক্ষার্থীদের নৈতিক স্খলন দিনে দিনে বাড়ছে। একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হয়ে কী করা যাবে, আর যাবে না-এসব সূক্ষ্ম বিষয়ে তাদের ন্যূনতম জ্ঞান নেই বলে মনে হচ্ছে। এ ধরনের ঘটনা কখনো কাম্য নয়। এছাড়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে জড়িতদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।
এদিকে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছবিটি শেয়ার হলে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়। ফলে বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নজরে আসে। প্রশাসন ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিকে খুঁজছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল-হাসান।
তিনি বলেন, ঘটনাটি যে করেছে, নিঃসন্দেহে একটা বাজে কাজ করেছে। এটা কোনোভাবেই প্রত্যাশিত নয়। ব্যানারে মেয়ের ছবি দেওয়া মোটেও কাম্য নয়। আমি ব্যানারটি খুলে ফেলার ব্যবস্থা করবো। সিসি টিভির ফুটেজ দেখে যে লাগিয়েছে, তাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করবো। ব্যানারে যে মেয়ের ছবি দেওয়া আছে, সে অভিযোগ না দিলেও আমরা খুঁজে বের করার চেষ্টা করব এবং তার কাছে এটার ব্যাখ্যা চাইব। তারপর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রচলিত আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category